জীবনে যখন থেকে মনে পড়ে কখনোই আমি অলস ছিলাম না। হয়তো সেভাবে কঠোর পরিশ্রমী ছিলাম না তবে গড়পড়তা মানুষের থেকে একটু বেশি লেখা পড়া করতে, কাজ করতে ভালবাসতাম এখন আরও বেশি বাসি। জীবনে সব কিছুতেই সাফল্য-ব্যর্থতা পেয়েছি এবং এখন মনে হয় যে ব্যর্থতা কোন খারাপ কিছু নয়। খারাপ হল মন দিয়ে চেষ্টা না করা। আরও খারাপ হল ব্যর্থতা থেকে হতাশ হয়ে দমে যাওয়া। আর সবচেয়ে ভাল কিছু হল চেষ্টা করে ব্যর্থ হবার পর ব্যর্থতা থেকে শিক্ষা নিয়ে আবার নতুন করে চেষ্টা করা।
জীবনে যে কয়টি জিনিশ ভাল মত করতে পেরেছি এবং সে গুলো নিয়ে অন্তত মনে মনে গর্বিত প্রতিটির জন্যই অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। আমাদের সমাজে শর্ট কাটের জয় জয়কার। এজন্য আগে কিছুটা মন খারাপ লাগলেও এখন খুবই খুশী আমি। কারণ যাই করেছি, যাই শিখেছি, মনে দিয়ে চেষ্টা করেছি বলেই শেখার মধ্যে, জানার মধ্যে ফাঁক অনেক কম। এতে মনের মত সাফল্য, খ্যতি, অর্থ, সুনাম আসুক আর নাই আসুক অন্তত মানসিক সন্তুষ্টি রয়েছে। আর এই সন্তুষ্টি আমি পরিচিত খুব কম মানুষের মধ্যেই দেখেছি।
এর ভাল দিক হচ্ছে এর মাধ্যমে যে আত্ববিশ্বাস আশে তা খুবই খাঁটি বা সলিড। বর্তমানে যে কাজে সারাদিন ব্যস্ত থাকি তাতে এই আত্ববিশ্বাস অনেক কাজে লাগছে। এখন উপলব্ধি করছি যে আস্তে আস্তে ফোকাসড হয়ে এগুতে পারাই সবচেয়ে ভাল। অবশ্য আমার মতের সঙ্গে অনেকেরই মত মিলবে না- যা লিখলাম একান্তই আমার ব্যক্তিগত অনুভূতি।

আমাদের সমাজে শর্ট কাটের জয় জয়কার