ই-ক্যাব ও আইপিএবি

ই-ক্যাব থেকে গতকাল আমরা কয়েকজন গিয়েছিলাম ইনটেলেকচুয়াল প্রপার্টি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (আইপিএবি)-এর একজন ইসি কমিটির একজন সদস্য ব্যারিস্টার আনিক আর হক এর সঙ্গে সাক্ষাত করতে। আইপিএবি গত ৫-৬ বছর ধরে কাজ করছে পাইরেসি রোধ করার জন্য। ই-কমার্স নিয়ে হয়তো এখনও কেউ এদিকে চিন্তা করছে না। কিন্তু দেখা যাচ্ছে আমাদের দেশে এদিকে যারা রয়েছেন তারা অনেক সময় না বুঝেই অনেক কিছু করছেন। কোম্পানির নাম একটি বিষয়, ছবি ও কন্টেন্ট এর কপিরাইট, অনলাইনে পাইরেটেড বই, গান, সিনেমা বিক্রি করা, নকল পন্য বিক্রি করা- এসব বিষয় নিয়ে হয়তো এখন অনেকেই মাথা ঘামাচ্ছেন না কিন্তু যারা সিরিয়াসভাবে ব্যবসা করতে চান, বড় হতে চান, এগিয়ে যেতে চান তাদের এসব নিয়ে চিন্তা করা দরকার।
তানাহলে ভবিষ্যতে অনেক রকম সমস্যা হবে। এজন্য এ বিষয়ে আমাদের সিরিয়াসলি এখন থেকেই চিন্তা শুরু করতে হবে। আইপিএবি এর মত একটি শক্তিশালী অ্যাসোসিয়েশনকে পাশে পেয়ে আমরা ই-ক্যাব থেকে আনন্দিত। আশা করি এতে করে ই-ক্যাবের সদস্য ভুক্ত কোম্পানি গুলো উপকৃত হবে। আমরা চেষ্টা করছি আরও কয়েকটি অ্যাসোসিয়েশন এর সঙ্গে এভাবে হাত মেলাতে ও নানারকমের উদ্যোগ হাতে নিতে।
আশা করা যাচ্ছে যে ই-ক্যাব ও আইপিএবি যৌথভাবে কাজ করবে এবং খুব শীঘ্রই আমরা বেশ কিছু কাজ করতে পারবো। প্রাথমিক ভাবে দুটো দিকে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি- পলিসি ডায়ালগ ও গবেষণা। এছাড়াও হয়তো ওয়ার্কশপের ব্যবস্থাও করবো।

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *