এখন প্রতিদিন ১০-১২ জন ফেইসবুকে জিজ্ঞেস করেন যে কমেন্ট করার পর কি করবো? আমি একটাই উত্তর দেই এক মাস ধরে কমেন্ট করে যান। এর পরের প্রশ্ন আসেনঃ আমি তো কমেন্ট করতে পারি এবং করছি। এর পরে কি করবো? আমার উত্তর- আপনি কমেন্ট করতে পারেন ঠিক আছে কিন্তু তা আপনার অভ্যাস হয়ে উঠেনি এখনো।
তাই ৩০ দিন ধরে কমেন্ট করে যান। এর পরের প্রশ্নঃ আমি ভাল করে ইংরেজি শিখতে চাই, তাই কমেন্ট করা ছাড়া কি করবো। আমার একই উত্তরঃ ৩০ দিন ধরে কমেন্ট করুন।
আমাদের দেশে খুব বড় দুটি সমস্যা হল মুখস্ত বিদ্যার উপর নির্ভরশীলতা এবং শর্ট কাটকে ভালবাসা। কমেন্ট লিখতে হলে আপনাকে নিজের ভাষায় কিছু লিখতে হবে এবং তাই অনেকের এটি পছন্দ নয় বা এর উপর আস্থা নেই। অথচ কমেন্ট লেখার গুরুত্ব মারাত্বক। এই গ্রুপে বেশির ভাগ মানুষ পরিক্ষার খাতার বাইরে জীবনে নিজের ভাষায় এক পৃষ্ঠা ইংরেজি লিখেছেন কিনা সন্দেহ। এবং আমাদের বেশির ভাগ মানুষ পাঠ্য বইয়ের বাইরে ইংরেজিতে কিছু পড়ি না। এই অভ্যাস বদলাতে হবে এবং এজন্যই কমেন্ট করা দিয়ে শুরু করছি আমরা।
আরেকটি খারাপ দিক হল শর্ট কাটের ভক্ত আমরা। ১২ বছর ইংরেজি পড়েও একটি ২০০ শব্দের পোস্ট তো দূরের কথা, ২০ শব্দের একটি কমেন্ট লিখতে ভয় পাই। কিন্তু এরপরও আমরা স্বপ্ন দেখি যে তিন মাসে ইংরেজিতে পণ্ডিত হয়ে যাবো। তাই এক মাস কমেন্ট লেখার চেষ্টা করুন এবং অভ্যাস গড়ুন।
সবাই আমার কথা শুনবে সেই স্বপ্ন আমি দেখি না। এত বোকা আমি নই। যারা শুনবে না তাদের নিয়ে মাথা ঘামিয়ে কোন লাভ নেই। তবে আশা করি কিছু লোক নিয়মিত হবে, নিয়মিত থাকবে। তাদের জন্যই এত পোস্ট লেখা এবং এত কষ্ট করা, ধৈর্য ধরে এত কিছু বলা।
তাদের বলবো যে এক মাস লেগে থাকেন কমেন্ট করার জন্য। দেখবেন আপনার অভ্যাস হয়ে গেছে এবং এরপর ইংরেজিতে কোন পোস্ট পড়ে কমেন্ট করাকে আর তেমন কঠিন কিছু বলে মনে হবে না। আর যারা এটি করতে চান না তাদের নিয়ে আসলে আমার কিছু বলার নেই।

এক মাস এবং অভ্যাস গড়া