প্রতিদিন ফেইসবুকের ইনবক্সে ৪-৫ জনের সঙ্গে কথা হয় এই গ্রামার নিয়ে। তারা মেসেজ দিয়ে বলেন যে গ্রামার শিখতে চান এবং সার্চ ইংলিশ গ্রুপে কেন গ্রামার নিয়ে কিছু বলি না। আমি বলি যে এটি আরও অন্তত ৬ মাস পরের ব্যপার। কেউ কেউ বেশ বিরক্ত হয়ে ঝগড়া বাধিয়ে দেবার চেষ্টা করেন এবং আমি আর মেসেজের উত্তর দেই না।
এখানে গ্রামার নিয়ে কিছু কথা বলতে চাই।
১। আমি গ্রামারের বিপক্ষে নই তবে আমি খুব কড়াভাবে বিশ্বাস করি যে আগে কয়েক মাস ইংরেজি লেখা ও পড়াতে অভ্যস্ত হবার চেষ্টা করুন।
২। আমি কাউকে গ্রামার পড়তে মানা করি না। কেউ পড়তে চাইলে পড়বেন- এ নিয়ে আমি কি করবো বা বলবো?
৩। সার্চ ইংলিশ গ্রুপে গ্রামার নিষিদ্ধ করা হয় নি। প্রতিদিন ৪-৫ টা পোস্ট গ্রামার নিয়ে আসে।
৪। যে চান যখন খুশি, যত খুশি গ্রামার পড়ুন, বই কিনে পড়ুন, ওয়েবসাইটে পড়ুন। আমি তো আটকাতে যাচ্ছি না। বা গ্রামার পড়লে, এ নিয়ে পোস্ট দিলে আমি কোন শাস্তিও দিতে চাচ্ছি না। পারলে পড়ুন ও পারুন।
সমস্যা আসলে এতে নয়, মূল সমস্যা হল যারা মেসেজ দেন তারা গ্রামার নিয়ে কয়েকদিন চেষ্টা করে ব্যর্থ হন এবং এরপর তারা চান যে সার্চ ইংলিশে আমি সব কিছু বাদ দিয়ে গ্রামার শেখানো শুরু করি। গ্রামার এর জন্য ওয়েবসাইট, ব্লগ এবং ফেইসবুক গ্রুপ সবই আছে, ফোরামও মনে হয় আছে কিন্তু তারা চান এখানে শেখানো হোক। কারণ এখানে তারা দেখতে পাচ্ছেন যে একের পর এক সাধারণ মানুষ ইংরেজিতে লিখছে।
আবার অনেকে বিশ্বাস করেন যে আমি গ্রামার শেখালেই হয়ে যাবে। আমি কোন ম্যাজিক জানি না। আমি চাই অন্তত ৬ মাস আগে আমরা অনেক লিখি এবং পড়ি এবং এরপর গ্রামার চর্চা শুরু করবো। যাদের ভাল লাগবে থাকুন, না লাগলে গ্রামার বই পড়ুন, অন্য গ্রুপে যোগ দিন, ওয়েবসাইটে চলে যান, ব্লগ পড়ুন বা বিদেশি ফোরামে যোগ দিন।
আমার কথা কারো কাছে খারাপ লাগলে আমি আন্তরিক ভাবে দুঃখিত কিন্তু আমি আমার নীতিতে অটল থাকবো। যাদের আমার প্রতি আস্থা আছে তারা আমার পরামর্শ মেনের চলার চেষ্টা করুন। না মানতে চাইলেও সমস্যা নেই, আপনাদের কোন টাকা দিতে হয় নি যে এর মায়ায় থাকতে বাধ্য।
ফারহানা আশা আপু, সুমন মল্লিক ভাই, পার্থ প্রতিম ভাইদের মত যারা অনেক সময় দিয়েছেন, এগিয়ে গেছেন তারা গ্রামার চর্চা করতে চাইলে আসলেই কোন সমস্যা নেই। কিন্তু বাকিরা দয়া করে আগে ইংরেজিতে অনেক লেখার, পড়ার ও বোঝার অভ্যাস করুন। তারপরেও কেউ পড়তে চাইলে পড়ুন, আমি তো আটকাতে যাচ্ছি না বা শাস্তি দিচ্ছি না।

গ্রামার নিয়ে কিছু কথা