আজকে ১৭ জন মনে হয়ে ৫০ টি করে কমেন্ট লিখতে পেরেছেন এবং এর মধ্যে ২ জন আবার ১০০ কমেন্ট লিখতে পেরেছেন। আমাদের দেশে সমস্যা হল ছোটবেলা থেকে আমাদের মধ্যে প্রতিযোগিতার চিন্তা টিচার আর গার্জিয়ানরা ঢুকিয়ে দেন।। ক্লাস টু তে আপনি ফাস্ট না লাস্ট হয়েছিলেন এর কি মুল্যে আছে বলেন?
তাই অন্যদের সাফল্যে আমরা আনন্দিত হতে পারি না। এই গ্রুপে অবশ্যই এই মানসিকতা কিছুটা বদলাতে পেরেছি আমরা। এরপর আসে অংশগ্রহণ। আমার পোস্ট গুলোতে ব্যপক লাইক কমেন্ট পড়ে।
তাছাড়া আজ থেকে যেহেতু অনেকেই কমেন্ট করছেন তাই সব পোস্টেই কম বেশি কমেন্ট পরছে। কিন্তু দরকার সবার মধ্যে সহযোগিতার মনোভাব। এর মানে কি? এর মানে হল যে যখন কেউ কমেন্ট করছেন তখন সেই কমেন্টে লাইক দিন। অন্যদের পোস্টে লাইক দিন। সব কমেন্ট পড়ার চেষ্টা করুন।
এই সহযোগিতার মনোভাব গড়ে তুলতে পারলে দেখবেন আপনার মধ্যে আগ্রহ অনেক বেড়ে গেছে। ধরা যাক আপনার পোস্টে অনেক লাইক পরছে, আপনার কমেন্টে অনেক লাইক পরছে। তখন কিন্তু লেখার আগ্রহ অনেক বেড়ে যাবে নিজের মধ্যে, সবার মধ্যে। এই গ্রুপে কোন প্রতিযোগিতার ব্যপার নেই কারণ আমরা একই ক্লাসে পড়ি না, একই কোম্পানিতে চাকুরি করি না। তাই কেউ ভাল করতে পারলে আমাদের কোন লস নেই বরং লাভ। একজন চাকুরীজীবী নারী যদি ১০০ কমেন্ট লিখতে পারেন তাহলে আমরা বাকীরাও পারবো। সবাই আমরা সাধারণ মানুষ, ইংরেজিতে দুর্বল। তাই যে যাই পারবে বাকীরাও আজ হোক কাল হোক পারবো। এই সামান্য জিনিশ মাথায় রাখবেন।
আরেকটি ব্যপার হল আমি চাই আপনারা একেক জন একেকদিকে এক্সপার্ট হবেন। গ্রামারের ক্ষেত্রে অনেক কাজে দেবে। সবার শক্তিকে এক করে সার্চ ইংলিশ এগিয়ে যাচ্ছে। সবাই সবাইকে অনুপ্রাণিত করলে সবাই আমরা অনেক দ্রুত এগিয়ে যাবো। তাই হচ্ছে কিন্তু এখন।
১ ঘণ্টা ইংরজিতে কথা বলা ব্যপার না, ১০০ শব্দের কমেন্ট লেখা ব্যপার না আর এখন একদিনে ৫০ টি কমেন্ট লেখাও সম্ভব। একজন দুই জন অনেক মানুষ করতে পেরেছেন তা।
শুধু বলবো সবাই সবাইকে সহযোগিতার মনোভাব রাখুন তাহলে সবার শক্তিতে অনেক ভাল কিছু হবে।
তাই সবার পোস্ট ও কমেন্টে যতটা সম্ভব লাইক দেবার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। আপনারা তো দুইদিনে ২১-২২ জন ৫০ টির বেশি কমেন্ট করতে পেরেছেন। তাই একদিনে ৫০ টি পোস্টে কি লাইক দিতে পারবেন না?

প্রতিযোগিতা, অংশগ্রহন এবং সহযোগিতা