এই গ্রুপে যারা একটু একটিভ তাদের অনেককেই ফেইসবুকের ইনবক্সে মেসেজ দিয়ে বলা হয় যে সার্চ ইংলিশ গ্রুপে এত সময় দিয়ে কি লাভ? আবার গ্রুপের কেউ কেউ ইনবক্সে আমাকে প্রশ্ন করেন- এত সময় দিয়ে এত কমেন্ট করে কি লাভ? সেই অর্থে কোন লাভ নেই আবার তেমন লোকসান নেই।
লোকসান যদি চিন্তা করেন তাহলে বলবো একটাই। ফেইসবুকে আগে সময় দিতেন অন্যদের পোস্ট পড়ে মজা পেতে মজা করতে। সেই মজা হারিয়ে যাবে যদি সার্চ ইংলিশ গ্রুপে একটিভ হন। যেহেতু টাকা পয়সার ব্যপার নেই তাই বাড়তি কোন লস নেই।
আর লাভও খুব বেশি নেই। ইংরেজিতে দ্রুত লিখতে পারবেন, বেশি লিখতে পারবেন, পড়ে আগের থেকে অনেক বেশি বুঝতে পারবেন। এগুলো হলে কি লাভ? পরিক্ষার হলে আরও দ্রুত লিখতে পারবেন, আপনার বই গুলো আরও সহজে পড়তে পারবেন, চাকুরির পরিক্ষায় আরও ভাল লিখতে পারবেন।
আর যদি একটু বেশি একটিভ হন তাহলে অনেকে আপনাকে চিনবে। যদি বছর খানেক সময় দেন তাহলে এক সময় গ্রামার পড়বেন, দক্ষ হবেন সব দিকে।
আরেকটা কথাও বলা হয়, গ্রুপ বড় হলে, একটিভ হলে রাজিব আহমেদের অনেক লাভ হবে। হ্যা, ঠিক আছে মেনে নিচ্ছি। আমি এখন এমন একটি গ্রুপের অ্যাডমিন এবং এক নম্বর ব্যক্তি যেখানে ২১০০০ মেম্বার আছে, প্রতিদিন ৫০ টি পোস্ট আসে এবং অন্তত ১০০০ কমেন্ট পরে। তবে আপনি কিন্তু এই গ্রুপে থাকতে বাধ্য নন। যেদিন খুশি চলে যেতে পারেন। বা চাইলে অন্য গ্রুপে, নিজের প্রোফাইলেও কমেন্ট করতে পারেন বা অন্যদের প্রোফাইলে।
এসব কথা বলছি কারণ আমি ভেজাল পছন্দ করি না। যাদের ভাল লাগবে থাকবেন এবং যাদের লাগবে না চলে যাবেন। কিন্তু যতক্ষণ এই গ্রুপে থাকবেন ততক্ষণ দয়া করে আমার কথা শোনার চেষ্টা করবেন। অনেক কষ্ট করে এই গ্রুপ দাড় করাচ্ছি, প্রতিদিন সময় দিয়ে। মাঝে মধ্যে পীঠ ব্যথা করা, চোখ ব্যথা করে, মাথা ব্যথা করে। যেমন ধরুন আজকে টানা ১২ ঘণ্টা বসে আছি টেবিল আর পিসির সামনে। কষ্ট করছি আমার বিশ্বাসের জন্য স্বপ্নের জন্য। আমি বিশ্বাস করি ইংরেজি নিয়ে ভয় আর লজ্জা কেটে গেলে অনেকে ভাল করবেন। এটি বাস্তবে পরিণত হচ্ছে দেখে খুব ভাল লাগে।

লাভ অথবা লোকসান