লেখার শক্তি আর প্রভাব আমি দেখেছি গত ২ বছরে

আমার এই প্রোফাইলে, সার্চ ইংলিশ এবং ই-ক্যাব গ্রুপে প্রতিদিন কয়েক হাজার মানুষ আমার লেখা গুলো পড়েন। একজন লেখকের কাছে এর থেকে বড় আনন্দের আর কি হতে পারে। আমি প্রতিদিন লিখি একদম বছরের ৩৬৫ দিন। প্রথম দিকে অনেকের কাছে পাগলামি বলে মনে হত। কিন্তু ই-ক্যাব গ্রুপের জনপ্রিয়তা এবং সার্চ ইংলিশের মাত্র ৬ মাসে লাখ লোকের যোগদানের ফলে এখন আর আমাকে কেউ পাগল মনে করেন না।
আমি ভাগ্যবান যে দুটি গ্রুপেই প্রায় ৯০% মানুষ আমাকে মানেন এবং বিশ্বাস করেন। এটি খুব বড় অর্জন আমার নিজের কাছে। লেখার শক্তি আর প্রভাব আমি দেখেছি গত ২ বছরে। সামনে আরও দেখবো।
তবে আমি চাই সেরা লেখা লিখতে যাতে করে অনেক মানুষ অনুপ্রাণিত হবার পাশাপাশি সেই শিক্ষাকে কাজে লাগাতে পারে। কষ্ট করতে হবে, লেগে থাকতে হবে, পরিশ্রম করতে হবে, বই পড়তে হবে- এসব কথাই আমি ঘুরে ফিরে দেই। স্বপ্ন দেখি আমার লেখা পড়ে অনেকে প্রতিদিন ১০ ঘণ্টা করে লেখাপড়ার দিকে মন দেব, নিজের ক্যারিয়ারে ভাল করার জন্য উঠে পড়ে লাগবে।
অনেক মানুষের বিশেষ করে তরুণদের সঙ্গে আমার প্রতিনিয়ত কথা হয়। তারা আসলে লম্বা সময় ধরে কোন কিছুর জন্য চেষ্টা করতে আগ্রহী নয়। তাদের মধ্যে সিরিয়াসনেসের অভাব আছে।
এই স্বপ্ন দেখি যে আমার লেখা পড়ে অনেকে সিরিয়াস হবে নিজেদের জীবন আর ক্যারিয়ার নিয়ে। তবে এও বুঝি যে ফেইসবুকের এই ২০০-৩০০ শব্দের পোস্ট দিয়ে তা করতে পারবো না। কারন আজকে পড়ার পর কাল হারিয়ে যায়, আমি নিজেই খুজে পাই না। দরকার বড় বড় লেখার এবং যাতে হারিয়ে না যায়। চেষ্টা করবো তা করার। পত্রিকা, ম্যগাজিন, ওয়েবসাইট, বই- এসবের দিকে মনে দেব।

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *