সবচেয়ে প্রিয় কাজ হচ্ছে লেখালেখি করা

আমার সবচেয়ে প্রিয় কাজ হচ্ছে লেখালেখি করা- যেকোনো ধরণের লেখা। বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত লেখার সংখ্যা ৫০০ এর কম হবে না। আর ব্লগে ও ওয়েবসাইটে ৫,০০০ পোস্ট তো হবেই। ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশান-এ কাজ করতে গিয়ে লেখালেখির সাথে সম্পর্ক কিছুটা দূরে সরে গেছে। তবে ই-ক্যাবের অনেক কিছুই আমার লেখা। খুব ইচ্ছা ছিল নিয়মিতভাবে ইবুক লিখে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিক্রি করা। মোটামুটি কিছু পরিকল্পনাও ঠিক করে ফেলেছি। কিন্তু ই-ক্যাব নিয়ে ফুল টাইম সময় দেবার জন্য তা আর হয়ে উঠছে না। আসলে আমাদের অনেকের মধ্যেই একধরনের স্বপ্ন লুকিয়ে থাকে। জীবনের নির্মম বাস্তবতার কারণে আমরা আমাদের স্বপ্ন থেকে অনেক দূরে সরে যেতে বাধ্য হই।
ব্যাংকের বড় কর্তা ব্যক্তিটির হয়তো স্বপ্ন ছিল মঞ্চ নাটকের নায়ক হবার। পত্রিকার ব্যস্ত সম্পাদকের হয়তো স্বপ্ন ছিল গান গাইবার। আমার মনে হয় ক্লাস থ্রি থেকেই স্বপ্ন ছিল লেখার। কিন্তু জীবনের বাস্তবতায় লেখক হিসেবে তেমন সাফল্য লাভ করিনি জ্ঞান, দক্ষতা, অভিজ্ঞতা অনেক কিছু থাকার পরেও। তারপরেও লেখালেখির আশেপাশে থাকার চেষ্টা করি, এখনোও স্বপ্ন দেখি ২-৩ বছর পর সারাদিন ধরে লিখবো।
ই-কমার্সের ভালদিক হল যে ভালমত চেষ্টা করলে যেকোনো শখকে পেশা এবং ব্যবসায় রুপান্তরিত করা যায় এর মাধ্যমে। অবশ্যই আপনার দক্ষতা থাকা লাগবে, পরিশ্রম করতে হবে, মার্কেটিং কিছু স্কিল জানা থাকতে হবে। তারপরেও ই-কমার্স আসার ফলে সারা জীবনের স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করার আশা এখন অনেক কাছে বলেই মনে হয়। এমন দিনের স্বপ্ন দেখি যখন আমার ছোট কোম্পানি থেকে আমরা কয়েকজন মিলে নিয়মিত ই-বুক লিখে যাব এবং এটাই হবে আমাদের নেশা, পেশা, স্বপ্ন, ব্যবসা, এবং বাস্তবতা।
আপনার স্বপ্ন কি? আপনি কি আপনার স্বপ্নের কাজ করতে পারছেন?

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *