আমরা যদি এই আকালেও স্বপ্ন দেখি কার তাতে কি

Neyamot Ullah Mohan vai and Abul Khayer ভাই আমার সঙ্গে আছেন প্রায় ২১ মাস ধরে। ২১ মাস আগে তাদের বয়স ছিল মনে হয় ২০। ই-ক্যাবের অনেক গুরুত্বপুর্ন মিটিং, রিপোর্ট, ব্লগ, ট্রেনিং সব কিছুতেই আমার সঙ্গে তারা কাজ করেছেন। এ নিয়ে

চালাকি করে বা শর্ট কাটে কিছু করতে গেলে তা ফাঁপা হয়

২০১৬ সালে অনেক পরিশ্রম করেছি ই-ক্যাব আর সার্চ ইংলিশ নিয়ে। প্রতিদিন চেষ্টা করেছি, কষ্ট করেছি, যতটা সম্ভব সময় ও শ্রম দিয়েছি। চেষ্টা করেছ ফাঁকি না দিয়ে, চালাকি না করে সৎ ভাবে পরিশ্রম করতে। ই-ক্যাব আজ খুব ভাল করে প্রতিষ্ঠিত এবং

আমি জীবনের প্রায় সব কিছু স্যাক্রিফাইস করি এবং হারাই

২০১৫ সালের জানুয়ারী আর ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাসের পোস্ট গুলো পড়লাম এতক্ষণ। ২০১৫ সালে আমার ফেইসবুকের প্রোফাইলে মাত্র ১০০০ ফ্রেন্ড ছিল এবং তখন বেশিরভাগ পোষ্টেই ২০-২৫ টি লাইক আসলেই মনে হয় আমি খুব খুশি হতাম। তেমন কমেন্ট আসতো না। কিন্তু

লেখার শক্তি আর প্রভাব আমি দেখেছি গত ২ বছরে

আমার এই প্রোফাইলে, সার্চ ইংলিশ এবং ই-ক্যাব গ্রুপে প্রতিদিন কয়েক হাজার মানুষ আমার লেখা গুলো পড়েন। একজন লেখকের কাছে এর থেকে বড় আনন্দের আর কি হতে পারে। আমি প্রতিদিন লিখি একদম বছরের ৩৬৫ দিন। প্রথম দিকে অনেকের কাছে পাগলামি বলে

তিন সাতে একুশ

এর মানে কি? অনেকে আমার জানতে চেয়েছেন। এর মানে তেমন কিছু না এবং এর সঙ্গে ই-ক্যাব বা আমার টিমের বা ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার কোন রকম সম্পর্ক নেই। গত বছর এই সময়ে ৭ জনের মত ছিলাম আমরা এবং নিজেরদের মধ্যে খাতির হওয়া

বাংলা ভাষার সঙ্গে সম্পর্ক

ফেব্রুয়ারি মাস ভাষার মাস- বাংলা ভাষার মাস। অনেকে এ মাসে আমাদের ইংরেজি প্রীতিকে নিয়ে ঠাট্টা মশকরা করতে ভালবাসেন। উপহাস না করে তারা যদি নিজেরা ভাষার প্রতি কিছু করতেন তাহলে বোধহয় অনেক বেশি ভাল হতো। ১৯৯৩ সালে ইংরেজিতে অনার্স পড়া শুরু

জন্ম আমার ঢাকায়

জন্ম আমার ঢাকায় এবং বলা যায় চরম মাত্রায় আমি ঘর কুনো বা ঢাকা কুনো। রাজধানী শহর ছাড়া বাংলাদেশের অন্য সব জায়গা অনেক সুন্দর, পরিবেশ দূষণ নেই বললেই চলে। গত নভেম্বর মাসে চট্টগ্রাম গিয়ে আমি খুবই মুগ্ধ। শহরের মধ্যে গাছপালা, পাহাড়,

কন্টেন্ট এর মূল্য উপলব্ধি

ই-ক্যাব থেকে আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি এবং এর ফলে দেশের ই-কমার্স সেক্টরে ২০১৫ সালের মধ্যেই আশাতীত অগ্রগতি ও প্রবৃদ্ধি আসবে বলে আমি আশাবাদী। কন্টেন্ট এর প্রয়োজনীয়তা অনেক বেশি কারন আপনি নিজেই চিন্তা করুন সারাদিন ইন্টারনেটে বসে কি করেন? গুগলে সার্চ

ফ্রেন্ড লিস্টে এখন ১৫০০ জনের বেশি

আমার ফ্রেন্ড লিস্টে এখন ১৫০০ জনের বেশি। ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশান অব বাংলাদেশ ই-ক্যাব এর সভাপতির দায়িত্ব নেবার আগে আমার লিস্টে ১০০ জনও ছিলনা। ই-কমার্স এর সঙ্গে প্রত্যক্ষ, পরোক্ষ ভাবে জড়িত বা ই-কমার্স নিয়ে কোন না কোন ভাবে জড়িত এমন প্রায় ১০০০

সবচেয়ে প্রিয় কাজ হচ্ছে লেখালেখি করা

আমার সবচেয়ে প্রিয় কাজ হচ্ছে লেখালেখি করা- যেকোনো ধরণের লেখা। বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত লেখার সংখ্যা ৫০০ এর কম হবে না। আর ব্লগে ও ওয়েবসাইটে ৫,০০০ পোস্ট তো হবেই। ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশান-এ কাজ করতে গিয়ে লেখালেখির সাথে সম্পর্ক কিছুটা দূরে সরে গেছে।

নানা ধরনের আইডিয়া মাথায়

নানা ধরনের আইডিয়া মাথায় অনেক বছর ধরেই ঘুরছে। একটা ফেইসবুক গ্রুপ ও ব্লগ খুলে ইংরেজি শিখাতে চাই, বাংলাদেশের আইটি সেক্টরে যারা কাজ করছে তাদের ইংরেজি স্কিল ডেভেলপ করতে চাই (এ নিয়ে ছোট খাট কিছু গবেষণাও করেছি), যারা ইংরেজিতে পড়ছে তাদের

প্রথম স্কুলে যাবার দিনঃ ছোট গল্প

(প্রথমেই বলে রাখি আত্বজীবনীর ভঙ্গীতে লেখা হলেও আমার নিজের জীবনের কাহিনীর সঙ্গে বড় জোর ১০% মিল আছে। হয়তো এটা গল্প কিংবা অনেকের ইতিহাস।) ৬ বছর হতে আর মাস তিনেক বাকি অপুর। এখনো স্কুলে যায়নি দেখে আত্মীয় স্বজন অনেকেই অবাক হয়।

সবাইকে স্বাগত

অনেকেই অনেকদিন ধরে আমার সব লেখা একসঙ্গে রাখার কথা বলছিলেন। কিছুটা অলসতা আর কিছুটা ব্যস্ততার কারনে তা করা হচ্ছিল না। ১৯৯৪ সালে দৈনিক ইত্তেফাক দিয়ে আমার লেখালেখি শুরু হয়। এরপর অন্তত ২৫ টি পত্রিকা ও ম্যাগাজিনে লেখা ছাপা হয়। এছাড়া